Total Pageviews

Tuesday, November 29, 2011

বাঘাইছড়িতে জনসংহতি সমিতির সদস্যকে হত্যার অভিযোগ

Courtesy: eProthom Alo, Dhaka,
Web: http://www.prothom-alo.com/detail/date/2011-11-29/news/204908

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি | তারিখ: ২৯-১১-২০১১

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারী ইউনিয়নে জ্যোতি বিকাশ চাকমা ওরফে সুমন (৩০) নামের এক ব্যক্তিকে গতকাল সোমবার রাতে গুলি করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) সদস্য ছিলেন। সংগঠনের পক্ষ থেকে ঘটনার জন্য সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত সাড়ে ১২টার দিকে জ্যোতি বিকাশ দৌড়ে এসে পশ্চিম লাইল্যাঘোনা গ্রামের একটি বাড়িতে ঢুকে পড়েন। সময় তাঁর পিছু নিয়ে ১০-১২ জনের একটি সশস্ত্র দলও ওই বাড়িতে যায়।
বাড়ির মালিক কৃপা চন্দ্র চাকমা জানান, গভীর রাতে চার-পাঁচজন লোক বাড়িতে ঢুকে জ্যোতি বিকাশকে গুলি করলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। তাঁর বুকে পাঁচটি গুলি লেগেছে। জ্যোতি বিকাশ চাকমা পার্শ্ববর্তী পাকুজ্যাছড়ি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।
নিহতের স্ত্রী অমরবালা চাকমা জানান, জ্যোতি বিকাশ চাকমা গতকাল সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। ভোরে মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে লাশ শনাক্ত করেছেন তিনি।
জনসংহতি সমিতির রাঙামাটি জেলা সাধারণ সম্পাদক সুদীর্ঘ চাকমা অভিযোগ করেন, সন্তু লারমা গ্রুপের সশস্ত্র দলের সদস্য বিস্তার চাকমার নেতৃত্বে জ্যোতি বিকাশ চাকমাকে হত্যা করা হয়।
তবে জনসংহতি সমিতির সহকারী তথ্য প্রচার সম্পাদক সজীব চাকমা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তাঁদের কোনো সশস্ত্র দল নেই। ঘটনার সঙ্গে দলের সংশ্লিষ্টতার প্রশ্নই আসে না।
বাঘাইছড়ি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ওয়াহিদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে

No comments:

Post a Comment