Total Pageviews

Wednesday, September 19, 2012

পাহাড়ি জনগণ জমির অধিকার ফিরে পাবে: প্রধানমন্ত্রী


Prothom Alo, Dhaka, page 19 (Sara Desh)

http://www.prothom-alo.com/detail/date/2012-09-19/news/290672

তারিখ: ১৯-০৯-২০১২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জনগণ জমির ওপর তাদের অধিকার ফিরে পাবে। এ ব্যাপারে সরকার সব ধরনের সহায়তা দেবে। গতকাল মঙ্গলবার গণভবনে উপজাতি নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। খবর বাসসের।

পার্বত্য পরিস্থিতি ও এর উন্নয়নে মতবিনিময়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে তিন সার্কেলের প্রধান, হেডম্যান ও কার্বারিদের নিয়ে উপজাতীয় নেতারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন সার্কেল প্রতিষ্ঠার ১২৮ বছরের মধ্যে কোনো সরকারপ্রধানের সঙ্গে তৃণমূল নেতাদের এটাই প্রথম বড় ধরনের মতবিনিময় সভা। সভায় প্রায় চার শ হেডম্যান ও কার্বারি এবং তিন পার্বত্য জেলার চেয়ারম্যান, সাংসদেরা উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময়ের সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জমির মালিকানা থেকেই পার্বত্য চট্টগ্রামের মূল সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। আমি আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি যে আপনারাই হবেন পার্বত্য চট্টগ্রামের জমির মালিক। আপনাদের এই অধিকার প্রতিষ্ঠায় আমরা সব ধরনের সহায়তা দেব।’ তিনি বলেন, জনগণের কাছে তাদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার অসম্পূর্ণ কাজ শেষ করতে একজন নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগসহ পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি কমিশন পুনর্গঠন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী জমির ওপর পার্বত্য জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও চুক্তি বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে কেউ যেন জনগণকে বিভ্রান্ত ও সরকারের চলমান প্রয়াস নস্যাৎ করতে না পারে সে ব্যাপারে পার্বত্য নেতাদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি, পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী দীপঙ্কর তালুকদার, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান বীর বাহাদুর এমপি, জ্যোতিন্দ্রলাল ত্রিপুরা এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন সার্কেলপ্রধান ব্যারিস্টার রাজা দেবাশিষ রায়, কে এস প্রু চৌধুরী ও সা চিং প্রু চৌধুরী বক্তৃতা করেন। 
 
প্রথম আলোর বান্দরবান প্রতিনিধি জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে উৎফুল্ল রাজা ও হেডম্যানরা আজ বুধবার বঙ্গবন্ধুর কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে টুঙ্গিপাড়ায় যাবেন বলে পার্বত্য চট্টগ্রাম হেডম্যান নেটওয়ার্কের সভাপতি রাংলাই ম্রো, বান্দরবান হেডম্যান অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মংথোয়াইচিং মারমা জানিয়েছেন। বান্দরবান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা মারমা ও হেডম্যান নেটওয়ার্কের সভাপতি রাংলাই ম্রো বলেছেন, ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানের প্রধানেরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১১ দফা দাবিসংবলিত দাবিনামা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী দাবিগুলো পর্যায়ক্রমে পূরণ করার আশ্বাস দেন।

No comments:

Post a Comment